মেনু নির্বাচন করুন

লক্ষ্মীপুর তায়ীদুল ইসলাম রহমানিয়া দাখিল মাদ্রাসা

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

মাদ্রাসাটি সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলাধীন ২নং জামালগঞ্জ সদর ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী লক্ষ্মীপুর গ্রামে অবস্থিত। মাদরাসাটি একটি সহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। মাদরাসায় সাধারণ বিভাগ চালু আছে এবং এটি ইবতেদায়ী ১ম শ্রেণি হইতে দাখিল ১০ম শ্রেণি পর্যমত্ম বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে একাডেমীক স্বীকৃতি প্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান। উক্ত প্রতিষ্ঠানে ২টি গৃহ (আধা পাকা ৬০ফুট লম্বা ও কাচা ৬০ফুট লম্বা) পুরাতন মেরামত যোগ্য হিসেবে রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটিতে ১টি টিউবওয়েল ও ছাত্র/ছাত্রীদের জন্য পৃথক শৌচাগার রয়েছে। মাদরাসার সামনে ১টি খেলার মাঠ ও নামাজ আদায়ের জন্য ১টি জামে মসজিদ সহ একটি পুকুর রয়েছে।

০১-০১-১৯৮৬খ্রিঃ

মাদরাসাটি এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ তাদের সমত্মানদের দ্বীনি শিক্ষার্জন করার লক্ষ্যে শিক্ষার আলো প্রসারিত করার উদ্দেশ্যে ১৯৮৬সালের ১লা জানুয়ারী লক্ষ্মীপুর গ্রামের মধ্যস্থলে ইবতেদায়ী সত্মরে স্থাপিত হয়। পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে ০১-০১-২০০১ইং তারিখে বাংলাদেশ মাদরাসা বোর্ডের অধীনে ৯ম শ্রেণি খোলার প্রাথমিক অনুমতি লাভ করে। এবং ০১-০১-২০০৭ইং তারিখে একাডেমীক স্বীকৃতি পায়। ০১-০১-২০০১ইং সনে মাদরাসাটি সরকারী অনুদান ভূক্ত হয় এবং ৩১-০৫-২০১০ইং তারিখে এম,পি,ও ভূক্ত হয়। 

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
মোহাম্মদ মোমতাজ উদ্দিন ০১৭২৭-৮৯৬৮৬০ nai@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

শ্রেণি

ছাত্র

ছাত্রী

মোট

১ম

৭৭

৫৩

১৩০

২য়

৪৬

০৭

৫৩

৩য়

৩৮

৩৭

৭৫

৪র্থ

৫০

৩০

৮০

৫ম

২৬

৩০

৫৬

৬ষ্ঠ

২১

৪৪

৬৫

৭ম

২০

১৫

৩৫

৮ম

১৩

১৫

২৮

৯ম

০৮

১৪

২২

১০ম

০৭

০৬

১৩

সর্বমোট-

৫৫৭জন

৮২%

০১। আলহাজ্ব সামছুল আলম ঝুনু তালুকদার, সভাপতি।

০২। সুপার অত্র মাদ্রাসা, সদস্য সচিব।

০৩। জনাব আব্দুস সোবহান তালুকদার, প্রতিষ্ঠাতা সদস্য।

০৪। জনাব আনোয়ার হোসেন, অভিভাবক সদস্য।

০৫। জনাব মোঃ গোলাম নূর, অভিভাবক সদস্য।

০৬। জনাব মোঃ জিয়াউল ইসলাম, অভিভাবক সদস্য।  

০৭। জনাব মোঃ ফখর উদ্দিন তাং, অভিভাবক সদস্য।

০৮। জনাবা মোছাঃ রম্নহেনা আক্তার, মহিলা অভিভাবক সদস্য।

০৯। জনাব মতিউর রহমান, শিক্ষক প্রতিনিধি।

১০। জনাব চিত্তরঞ্জন দাস, শিক্ষক প্রতিনিধি।

১১। জনাব মোঃ ছালিম উদ্দিন, শিক্ষানুরাগী সদস্য।

পঞ্চম সমাপনী: ২০১০- পরীক্ষার্থীর সংখ্যা-২১জন পাশ: ১৫জন। পাশের হার: ৭১%

                  ২০১১- পরীক্ষার্থীর সংখ্যা-৩৯জন পাশ: ২০জন। পাশের হার: ৫১%

                  ২০১২- পরীক্ষার্থীর সংখ্যা-৩৬জন পাশ: ৩২জন। পাশের হার: ৮৯%

 

জে.ডি.সি:       ২০১০- পরীক্ষার্থীর সংখ্যা-১০জন পাশ: ০৩জন। পাশের হার: ৩০%

                  ২০১১- পরীক্ষার্থীর সংখ্যা-১৮জন পাশ: ১৭জন। পাশের হার: ৯৪%

                  ২০১২- পরীক্ষার্থীর সংখ্যা-২৩জন পাশ: ২২জন। পাশের হার: ৯৬%

দাখিল:  ২০০৯- পরীক্ষার্থীর সংখ্যা-০৮জন পাশ: ০৭জন। পাশের হার: ৮৭%

          ২০১০- পরীক্ষার্থীর সংখ্যা-০৯জন পাশ: ০২জন। পাশের হার: ২২%

          ২০১১- পরীক্ষার্থীর সংখ্যা-১৩জন পাশ: ১০জন। পাশের হার: ৭৭%

          ২০১২- পরীক্ষার্থীর সংখ্যা-১০জন পাশ: ০৫জন। পাশের হার: ৫০%

          ২০১৩- পরীক্ষার্থীর সংখ্যা-১২জন পাশ: ১০জন। পাশের হার: ৮৩%

বিগত ৩বৎসরের কোন ছাত্র/ছাত্রী শিক্ষাবৃত্তি অর্জন করেনি এবং মাদ্রাসা থেকেও কোন প্রকার শিক্ষা বৃত্তি চালু নেই।

ছাত্র/ছাত্রীর সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ইবতেদায়ী (প্রাথমিক) শিক্ষার ঝড়ে পড়া রোধ হচ্ছে এবং পাশের হার ও শিক্ষার মান দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। 

মাদরাসার আশে পাশে কোন ইবতেদায়ী ও দাখিল মাদরাসা নেই। ২২টি গ্রামের জন্য এটি একটি দাখিল সত্মরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এখান থেকে দাখিল পাশ করে অনেক ছাত্র/ছাত্রী আলিম (একাদ্বশ) শ্রেণিতে পড়াশুনার জন্য প্রায় ২০কিঃ মিঃ দুর নোয়াগাঁও অষ্টগ্রাম সিনিয়র মাদরাসায় যেতে হয়। অনেক গরীব ছাত্র/ছাত্রী আলিম(একাদ্বশ) শ্রেণিতে শিক্ষাগ্রহণ করতে অর্থের অভাবে ঝড়ে পড়ে। তাই সরকারী ভাবে একটি পৃথক বিল্ডিং নির্মাণের সহায়তা প্রদান করলে জরম্নরী ভিত্তিতে আলিম একাদ্বশ শ্রেণি খোলার পরিকল্পনা রয়েছে। 

 মোহাম্মদ মোমতাজ উদ্দিন

সুপার

লক্ষীপুর তায়ীঃ ইসঃ রহঃ দাখিল মাদরাসা

জামালগঞ্জ,সুনামগঞ্জ।



Share with :

Facebook Twitter